শুক্রবার “হ্যাকার” হয়ে আসছে আ.খ.ম হাসান চ্যানেল আইতে

“হ্যাকার আ.খ.ম হাসান”
রাজীব মণি দাসের রচনা ও আর.এইচ সোহেলের পরিচালনায় টেলিফিল্ম “হ্যাকার” আগামী ১০ মে/আজ দুপুর ৩টায় চ্যানেল আই’তে প্রচারিত হবে।
টেলিফিল্মের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন আ.খ.ম হাসান, ফারজানা রিক্তা, তারিক স্বপন, নিকুল কুমার মন্ডল, বিপ্লব প্রসাদ, মীর সাখাওয়াত প্রমুখ।

রাজীব মণি দাসের হ্যাকার

হ্যাকার আ.খ.ম হাসান

গল্পে দেখা যায়, গ্রামের শিক্ষিত বেকার তিন যুবক পত্রিকায় ‘হ্যাকিংয়ের কবলে বিশ্ব শিরোনামের সংবাদ দেখে তারাও হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে অর্থ আত্মসাত করার জন্য আগ্রহী হয়ে উঠে।
বুঝে না বুঝে নানান বিষয়ে চর্চা শুরু করে। এমনকি নিজেদের নাম পর্যন্ত পরিবর্তন করে ফেলে তারা। বিশ্ব বিখ্যাত স্মিথ হ্যাকারের নামের সাথে নিজের নাম যোগ করে দেয় আ.খ.ম হাসান।

রাজীব মণি দাসের হ্যাকার

মায়ের টাকা চুরির মাধ্যমে তাদের হ্যাকিং জীবনের প্রথম মিশন আরম্ভ হয়। সেই টাকা দিয়ে ল্যাপটপ, ইন্টারনেট এবং দামি পোশাক ক্রয় করে। তাদের ধারণা যেকোনো বস্তু/মানুষকে হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে এক দেশ থেকে আরেক দেশে নিয়ে যেতে পারবে। স্মিথ হ্যাকারের প্রেমিকা তাদের এই সকল আজগুবি কর্মকান্ড দেখে হতভম্ব হয়ে যায়।
ধীরে ধীরে তিন বন্ধু স্মিথ, মাইকেল ও জেমস হ্যাকারের নাম চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ে।

রাজীব মণি দাসের হ্যাকার

এদিকে হঠাৎ করে হ্যাকিংয়ের কবলে পড়ে একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠান। প্রশাসন খুঁজতে থাকে সেই হ্যাকার টিমকে। জানতে পারে অজোপাড়া গাঁয়ের তিন যুবক বিভিন্নভাবে হ্যাকিং করে চলেছে। পুলিশের ধারণা, এই তিন যুবকই উক্ত প্রতিষ্ঠানের অর্থ হ্যাকিংয়ের সঙ্গে জড়িত। হন্যে হয়ে তাদের খুঁজতে থাকে পুলিশ। পত্রিকায় হ্যাকারদের ছবি সংবলিত সংবাদও ছাপানো হয়। তবে সত্যিকার অর্থে এই তিন যুবক হ্যাকিংয়ের সাথে জড়িত কিনা, তা টেলিফিল্মটির গল্পে দেখা যাবে।

মিডিয়া পাড়া24

Facebooktwittergoogle_pluslinkedinrssyoutubeinstagramflickr

চাটাম ঘরের মাতব্বর

চাটাম ঘর

Chattam-Ghor

Chattam-Ghor


মিডিয়া পাড়া ২৪ : তিনি এখন একটি চাটাম ঘরের মাতব্বর। গ্রামের সহজ সরল মানুষের জীবনযাত্রার পথে প্রতিনিয়ত নানা সমস্যার সম্মুখিন হচ্ছেন তিনি। বিবাদমান সমস্যা সমাধানে বিচারকের ভূমিকাও পালন করতে হচ্ছে তাকে। ঢেঁড়া পিটিয়ে গ্রামজুড়ে তার মাতব্বরি ঘোষণা করা না হলেও যেমন স্বঘোষিত মাতব্বর তিনি, তেমনি তিনি চাটাম আর চাঁপাবাজিতেও বেশ পটু। কথার ফুলঝুড়িতে তাকে হার মানানো দায়। জনপ্রিয় নাট্যাভিনেতা ও নির্মাতা শামীম জামানের কথা বলা হলো এতক্ষণ। তবে এটা বাস্তবে নয়। মুহাম্মদ মামুন অর রশীদ রচিত ‘চাটাম ঘর’ নাটকে মুকিত নামের একটি চরিত্রে এমন অভিনয় করতে দেখা যাবে তাকে। যেখানে তার এই চরিত্রগুলো ফুটে উঠবে। এটি পরিচালনা করছেন শামীম জামান নিজেই। তিনি ছাড়াও এতে অভিনয় করছেন মোশাররফ করিম, আ খ ম হাসান, জুঁই করিম, নাদিয়া, নাবিলা প্রমুখ।

জানা গেছে, বেসরকারি টিভি চ্যানেল বাংলাভিশনে প্রচারের জন্য ‘চাটাম ঘর’ নাটকটি নির্মাণ করা হচ্ছে। রাজধানীর পূবাইলে একটি শুটিং হাউসে দৃশ্য ধারণের কাজ চলছে। চলমান মাসজুড়ে (অক্টোবর) শুটিং চলবে বলে জানিয়েছেন অভিনেতা ও নির্মাতা শামীম জামান। আগামী ১৬ নভেম্বর এটি টিভির পর্দায় দেখা যাবে।

Chattam-Ghor-1

Chattam-Ghor-1

এ নাটক নির্মাণ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘যে ঘরে বসে মানুষ গাল-গল্প করে, অলস সময় পার করে সেটাই হচ্ছে চাটাম ঘর। এখানে বসে মানুষ দুর্লভ সব গল্প করে, চাঁপাবাজী আর চাটাম করে। বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে এরকম চাটাম ঘর আছে। তবে এই নাটকে আমরা যে চাটাম ঘরের ব্যবহার করেছি এরকম ঘর সচরাচর দেখা যায় না।’

গ্রামের চাটাম ঘর আর শহুরে ক্লাবের মধ্যে পার্থক্য আছে কী? এমন প্রশ্নের জবাবে শামীম জানান বলেন, গ্রাম আর শহরের মানুষের মধ্যে অনেক পার্থক্য রয়েছে। গ্রামের মানুষের জীবনযাপন কৃষি নির্ভর। তারা অনেক পরিশ্রম করে। দিনশেষে ক্লান্ত শরীরে চাটাম ঘরে যায় অলস সময় কাটাতে। অনূরূপ ভাবে শহরের মানুষ সারাদিন অফিস-আদালতের ব্যস্ততা শেষে ক্লাবে যায় আড্ডা দিতে। জীবনযাত্রা যেমন ভিন্ন তেমনি চাটাম ঘরের আড্ডা আর ক্লাব ঘরের আড্ডা ভিন্ন। বাকিটা দর্শক দেখলেই বুঝতে পারবেন।’

Facebooktwittergoogle_pluslinkedinrssyoutubeinstagramflickr

আ খ ম হাসান এর একটি মজার দৃশ্য দেখুন না দেখলে মিস্ করবেন Akhomo Hasan মিডিয়া পাড়া24

আ খ ম হাসান এর একটি মজার দৃশ্য দেখুন না দেখলে মিস্ করবেন Akhomo Hasan মিডিয়া পাড়া24


আ খ ম হাসান এর একটি মজার দৃশ্য দেখুন না দেখলে মিস্ করবেন Akhomo Hasan মিডিয়া পাড়া24
https://youtu.be/ZGF7bKSbmrY
আ খ ম হাসান এর একটি মজার দৃশ্য দেখুন না দেখলে মিস্ করবেন Akhomo Hasan মিডিয়া পাড়া24

Facebooktwittergoogle_pluslinkedinrssyoutubeinstagramflickr

এবার ঈদে চশমা পরিবার

মিডিয়া পড়া24 বিনোদন ডেস্ক :ঈদ মানেই নতুন নাটক আর টেলিফিল্ম। তাই বুঝি আনন্দের এমন উৎসবকে সামনে রেখে ব্যস্ত সময় পার করছেন পরিচালক ও অভিনেতা-অভিনেত্রীরা। হয়ে গেল শামীম জামান পরিচালিত নাটক ‘চশমা পরিবার’। জাকারিয়া আজাদের গল্পে এটি লিখেছেন রবজাহান হোসেন।

এমন একটি পরিবার যাদের চশমা প্রীতি ভীষণ। এই পরিবারের অন্যতম সদস্য মোশাররফ করিম। তার আবার ঘটনা ভিন্ন। চশমা ছাড়া তিনি পা-ও ফেলতে পারেন না। তো নানা ঘটনার পর পরিবারের এই অন্যতম সদস্যের বিয়ে সম্পন্ন হয়। আর তাতে ঘটতে থাকে নানা বিপত্তি। এখানে তার হবু স্ত্রীর ভূমিকায় আছেন শখ।নাটকে এভাবেই হাজির হচ্ছেন মোশাররফ ও শখ।

পরিচালক শামীম জামান জানান, সাত পর্বের এ নাটকের কাজ ইতোমধ্যে শেষ হয়েছে। এখন শুধু সম্পাদনা আর ঈদের অপেক্ষা।
সম্পাদক মমিন সরকার বলেছেন আশা রাখি নাটকটি অনেক ভালো হবে ?এবং দরশক তা ভালোভাবে নিবে…

এদিকে মোশাররফ-শখ ছাড়াও এতে অভিনয় করেছেন ফারুক হোসেন, মানিরা মিঠু, আখম হাসান, এমিলাসহ অনেকে।নাটকটি ঈদের সাত দিন বৈশাখী টিভিতে প্রচার হবে বলে জানান নির্মতা

Facebooktwittergoogle_pluslinkedinrssyoutubeinstagramflickr

‘ইসস্’ মিলনকে আইরিনের চ্যালেঞ্জ!

মিডিয়া পড়া24 বিনোদন ডেস্ক :বসার ঘরটি ছিমছামভাবে গোছানো। টি টেবিলের উপর একটি ফুলের তোরা রাখা। তার পাশেই নতুন একটি এলইডি টিভির বাক্স। তার উপর হাত রেখে হাস্যজ্জ্বল ভঙ্গিতে কথা বলছেন আইরিন তানি ও আনিসুর রহমান মিলন। মিলনের মাথার উপরে বুম ঝুলছে। লাইট ক্যামেরাও রেডি। শুধু পরিচালকের অ্যাকশন বলার অপেক্ষা।

উত্তরার একটি শুটিং বাড়িতে এমন দৃশ্য দেখা যায়। ঈদুল ফিতর উপলক্ষে নির্মিত হয়েছে একক নাটক ‘ইসস্’। শাহজাহান সৌরভের রচনায় নাটকটি পরিচালনা করেছেন ফজলুল সেলিম। আর এতে জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন মিলন-তানি।

নাটক প্রসঙ্গে রাইজিংবিডির সঙ্গে কথা বলেন অভিনেত্রী আইরিন তানি। এর গল্প প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘একটি টেলিভিশনকে কেন্দ্র করে নাটকটির কাহিনি এগিয়েছে। এতে আমি আর মিলন ভাই স্বামী-স্ত্রীর চরিত্রে অভিনয় করেছি। গল্পে মিলন ভাই ২০ হাজার টাকা বেতনের একটি চাকরি করেন। অনেকটা অলস টাইপের মানুষ। তার বিশেষ কোনো স্বপ্ন নেই। যে অল্প বেতনের চাকরি করে সেটা নিয়েই তার দিন কেটে যায়। আরো ভালো কিছু করতে হবে, আরো পরিশ্রম করতে হবে, সব কিছু ভাগ্যের উপর ছেড়ে দিলে হয় না, এই উপলদ্ধি তার নেই।

‘ইস’

‘ইস’

বাসায় টেলিভিশন নেই, ফ্রিজ নেই। আমি একা বাসায় থাকি। সময় কাটে না তাই আমি এসব কিনে দিতে বলি। তা ছাড়া এই সমাজে কিছু মানুষ থাকে যারা এসব বিষয় নিয়ে খুব বাজেভাবে আঙুল তুলে কথা বলে। এক পর্যায়ে আমি মিলন ভাইকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিই। বলি, তোমার জীবনের যে গোল আছে সেটা তুমি পূরণ করে দেখাও। তারপর গল্পটি নানাভাবে মোড় নেয়।’

শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা প্রসঙ্গে আইরিন তানি বলেন, ‘কাজটি করে ভীষণ ভালো লেগেছে। ভাগ্যের উপর ছেড়ে দিলে সফলতা আসে না। সফলতার জন্য পরিশ্রম করতে হয়। এই মেসেজটা নাটকের গল্পে আছে। নির্মাতা সেলিম অল্প কাজ করে কিন্তু যা নির্মাণ করে তা ভালো কাজই করে। আর মিলন ভাই অসাধারণ একজন সহশিল্পী। সব মিলিয়ে অনেক ভালো একটি টিম পেয়েছিলাম। তাই কাজটিও ভালো হয়েছে। মনে হচ্ছে, দর্শকেরও কাজটি ভালো লাগবে।’

গতকাল নগরীর উত্তরায় নাটকটির দৃশ্যধারণের কাজ শেষ হয়েছে। আইরিন তানি, মিলন ছাড়াও এতে অভিনয় করেছেন নূর এ আলম নয়ন। ঈদুল ফিতরে বেসরকারি একটি টেলিভিশনে নাটকটি প্রচারিত হবে।

Facebooktwittergoogle_pluslinkedinrssyoutubeinstagramflickr
1 2