মীর সাব্বিরের সুপার কমেডি নাটক “উচ্চমাধ্যমিক ফেসবুক বিদ্যালয়”

উচ্চমাধ্যমিক ফেসবুক বিদ্যালয়

আজ ৫ই ডিসেম্বর বেলা ৩ ঘটিকায় মীর সাব্বিরের সুপার কমেডি নাটক
উচ্চমাধ্যমিক ফেসবুক বিদ্যালয়” আসছে মিডিয়া পাড়া ইউটিউব চ্যানেলে।
উচ্চমাধ্যমিক ফেসবুক বিদ্যালয়
প্রিয় দর্শক আপনারা সবাই নাটকটি পুরোপুরি দেখবেন আশা করছি আপনাদের সবার কাছে নাটকটি ভাল লাগবে।
নাটকটি রচনা করেছেন ফরহাদ আলম ও অরণ্য আনোয়ার
এবং পরিচালনায় অরণ্য আনোয়ার,
নাটকটিতে দেখা যাবে মীর সাব্বির, নোভা, অশোক বেপারী, শাহরিয়ার সজিব, মিষ্টি মারিয়া, শিপা , আরো অনেকে ‌।
নাটকটি দেখতে চোখ রাখুন মিডিয়াপাড়া ইউটিউব চ্যানেলে এ ধন্যবাদ ।
Natok Link :Uccho Maddhomik facebook Biddaloy | ফেসবুক বিদ্যালয় | Mir Sabbbir | Nova | Bangla Comedy Natok 2019

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubeinstagramflickr

শুটিং শেষ হলো ১০৪ পর্বের জনপ্রিয় ধারাবাহিক নাটক চাটাম ঘরের

চাটাম ঘর
মিডিয়া পাড়া ২৪ : শুটিং শেষ হলো ১০৪ পর্বের শামীম জামান পরিচালনায় বাংলা ভিশনের জনপ্রিয় ধারাবাহিক নাটক চাটাম ঘরের,
চাটাম ঘর নাটক নিয়ে পরিচালকের কিছু কথা :
চাটাম ঘর নাটকটি এক বছরেরও বেশি সময় ধরে নাটকটি প্রচার হচ্ছে ।
অনেক ভাল লাগা মন্দ লাগা নিয়ে চাটাম ঘরের জন্য ভিষন মায়া লাগছে কারন চাটাম ঘর নটকটি ১০৪ পর্ব পর্যন্ত টিভিতে দেখা যাবে প্রিয় চাটাম ঘর, ভালো থাকুক।
ধন্যবাদ প্রিয় বাংলাভিশনকে, প্রিয় দর্শকদেরকে, ধন্যবাদ জানই বাংলাভিষনের প্রোগ্রাম প্রধান তারেক আকনদ্ কে, ধন্যবাদ প্রকাশ করছি নাট্যকার মোহাম্মদ মামুন -অর-রশীদকে। বিশেষ কৃতজ্ঞতা আমার বন্ধু অভিনেতা ও প্রযোজক মোশারফ করিম ও রোবেনা রেজা জুই এর প্রতি…..এবং সেই সাথে আরো ধন্যবাদ জানই আমার উপর সবার আস্থা রাখার জন্য। ধন্যবাদ জানাই আমার এডি টিম মনির হোসেন, অভি, ডিওপি সোহেল, রাজিব কে, ধন্যবাদ জানই এডিটর মমিন সরকারসহ সমস্ত টেকনিক্যাল পারসন দেরকে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি অভিনয় শিল্পীদের প্রতি। কারো মনের অজান্তে কষ্ট দিয়ে থাকলে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। চেষ্টা করবো আগামীতে আপনাদের মনের মতো চরিত্র দিতে । ইতিমধ্যে চাটাম ঘর নাটকের শুটিং শেষ হয়েছে তবে এখনো তার সম্পাদনার কাজ চলছে ।
প্রিয় দর্শক আপনারা সবাই চাটাম ঘর নাটকটি পুরোপুরি দেখবেন আশা রাখছি সবার কাছে ভালো লাগবে । আবারও ধন্যবাদ জানাই সবাইকে ।
এডিটর মমিন সরকার

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubeinstagramflickr

চাটাম ঘরের মাতব্বর

চাটাম ঘর

Chattam-Ghor

Chattam-Ghor


মিডিয়া পাড়া ২৪ : তিনি এখন একটি চাটাম ঘরের মাতব্বর। গ্রামের সহজ সরল মানুষের জীবনযাত্রার পথে প্রতিনিয়ত নানা সমস্যার সম্মুখিন হচ্ছেন তিনি। বিবাদমান সমস্যা সমাধানে বিচারকের ভূমিকাও পালন করতে হচ্ছে তাকে। ঢেঁড়া পিটিয়ে গ্রামজুড়ে তার মাতব্বরি ঘোষণা করা না হলেও যেমন স্বঘোষিত মাতব্বর তিনি, তেমনি তিনি চাটাম আর চাঁপাবাজিতেও বেশ পটু। কথার ফুলঝুড়িতে তাকে হার মানানো দায়। জনপ্রিয় নাট্যাভিনেতা ও নির্মাতা শামীম জামানের কথা বলা হলো এতক্ষণ। তবে এটা বাস্তবে নয়। মুহাম্মদ মামুন অর রশীদ রচিত ‘চাটাম ঘর’ নাটকে মুকিত নামের একটি চরিত্রে এমন অভিনয় করতে দেখা যাবে তাকে। যেখানে তার এই চরিত্রগুলো ফুটে উঠবে। এটি পরিচালনা করছেন শামীম জামান নিজেই। তিনি ছাড়াও এতে অভিনয় করছেন মোশাররফ করিম, আ খ ম হাসান, জুঁই করিম, নাদিয়া, নাবিলা প্রমুখ।

জানা গেছে, বেসরকারি টিভি চ্যানেল বাংলাভিশনে প্রচারের জন্য ‘চাটাম ঘর’ নাটকটি নির্মাণ করা হচ্ছে। রাজধানীর পূবাইলে একটি শুটিং হাউসে দৃশ্য ধারণের কাজ চলছে। চলমান মাসজুড়ে (অক্টোবর) শুটিং চলবে বলে জানিয়েছেন অভিনেতা ও নির্মাতা শামীম জামান। আগামী ১৬ নভেম্বর এটি টিভির পর্দায় দেখা যাবে।

Chattam-Ghor-1

Chattam-Ghor-1

এ নাটক নির্মাণ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘যে ঘরে বসে মানুষ গাল-গল্প করে, অলস সময় পার করে সেটাই হচ্ছে চাটাম ঘর। এখানে বসে মানুষ দুর্লভ সব গল্প করে, চাঁপাবাজী আর চাটাম করে। বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে এরকম চাটাম ঘর আছে। তবে এই নাটকে আমরা যে চাটাম ঘরের ব্যবহার করেছি এরকম ঘর সচরাচর দেখা যায় না।’

গ্রামের চাটাম ঘর আর শহুরে ক্লাবের মধ্যে পার্থক্য আছে কী? এমন প্রশ্নের জবাবে শামীম জানান বলেন, গ্রাম আর শহরের মানুষের মধ্যে অনেক পার্থক্য রয়েছে। গ্রামের মানুষের জীবনযাপন কৃষি নির্ভর। তারা অনেক পরিশ্রম করে। দিনশেষে ক্লান্ত শরীরে চাটাম ঘরে যায় অলস সময় কাটাতে। অনূরূপ ভাবে শহরের মানুষ সারাদিন অফিস-আদালতের ব্যস্ততা শেষে ক্লাবে যায় আড্ডা দিতে। জীবনযাত্রা যেমন ভিন্ন তেমনি চাটাম ঘরের আড্ডা আর ক্লাব ঘরের আড্ডা ভিন্ন। বাকিটা দর্শক দেখলেই বুঝতে পারবেন।’

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubeinstagramflickr

অবশেষে বলিউড সুপারস্টার শ্রীদেবীর মৃত্যু রহস্যের অবসান


অবশেষে বলিউড সুপারস্টার শ্রীদেবীর মৃত্যু রহস্যের অবসান হয়েছে। এরই মধ্যে মামলা বন্ধ ঘোষণা করেছে দুবাই পুলিশ।

দুবাই সরকারের মিডিয়া অফিস জানিয়েছে, তার মৃত্যুর ঘটনায় তদন্ত শেষ হয়েছে। এর আগে মৃত্যুর কারণ ও সময় নিয়ে বিভ্রান্তি তৈরি হলে দুবাইয়ের সরকারি কৌঁসুলিকে তদন্ত ভার দেয়া হয়। এতে তৈরি হয় ধুম্রজাল। তবে এই মৃত্যুর পেছনে কোনো অপরাধমূলক উদ্দেশ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি। এরপরই শ্রীদেবীর মরদেহ ভারতে নিয়ে আসার ছাড়পত্র দেয় দুবাই পুলিশ। রাতেই তার মরদেহ মুম্বাইতে পৌঁছাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তার পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, বুধবার বিকেলে মুম্বাইয়ের ভিলে পার্লেতে শেষকৃত্যের আয়োজন করা হয়েছে বলিউডে সাড়াজাগানো এই অভিনেত্রীর।

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubeinstagramflickr

চালু হলো ঈশ্বরদী বিমানবন্দর

চালু হলো ঈশ্বরদী বিমানবন্দর।
এখন থেকে সপ্তাহের দুই দিন শনি ও সোমবার ৩৭
আসনের একটি যাত্রীবাহী এয়ারক্রাফট ঈশ্বরদী
বিমানবন্দর থেকে ঢাকা-ঈশ্বরদী-ঢাকা রুটে সরাসরি
চলাচল করবে।
মঙ্গলবার ইউনাইটেড এয়ার ওয়েজের জনসংযোগ
বিভাগের এজিএম কামরুল ইসলাম ও বেসামরিক বিমান
চলাচল কর্তৃপক্ষের পরিচালক আজাদ জহিরুল ইসলাম এ
তথ্য নিশ্চিত করেন।
তিনি বলেন, এর আগে গত ১০ অক্টোবর, ১৩
অক্টোবর ও ২৩ অক্টোবর ঈশ্বরদী বিমানবন্দর
চালু করতে তারিখ নির্ধারণ করা হলেও শেষ পর্যন্ত
৩০ অক্টোবর চূড়ান্ত তারিখ নির্ধারণ করে
ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ ও বেসামরিক বিমান চলাচল
কর্তৃপক্ষ।
পুণরায় ঈশ্বরদী বিমানবন্দরটি চালু সংক্রান্ত বিষয়ে
ঈশ্বরদী বিমানবন্দরে আনুষ্ঠানিকভাবে আজ এক
সংবাদ সম্মেলনও অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন
ইউনাইটেড এয়ারওয়েজের জনসংযোগ বিভাগের
এজিএম কামরুল ইসলাম।
তিনি বলেন, ঢাকা থেকে দুপুর ২টা ১০ মিনিট ও
ঈশ্বরদী বিমানবন্দর থেকে দুপুর ৩টা ১০ মিনিটে এ
এয়ারক্রাফটি ছেড়ে যাবে বলে প্রাথমিকভাবে সময়
নির্ধারিত হয়েছে। ভ্যাট ট্যাক্সসহ ঈশ্বরদী
থেকে বিমানে ঢাকায় যেতে অথবা ঢাকা থেকে
ঈশ্বরদীতে আসতে জনপ্রতি ভাড়া নির্ধারিত
হয়েছে ৪ হাজার টাকা।
১৯৬০ সালে ৪ ১২ একর জমির ওপর ঈশ্বরদী
বিমানবন্দরের প্রাথমিক কাজ আরম্ভ করা হয়। সে
সময় প্রায় ২২ লাখ টাকা ব্যয়ে রানওয়ে তৈরি করে
ডাকোটা ডিসি-৩ বিমান চালু করা হয়। ১৯৬৬ সালে
কংক্রিটের রানওয়ে তৈরির পর ডিসি-৩ বিমান বন্ধ করে, ফকার-এফ-২৭ বিমান চালু করা হয়।
সেসময় উত্তরবঙ্গে জরুরি অবস্থা মোকাবেলার
জন্য আমেরিকান-সি-১৩০ বিমানও ঈশ্বরদী
বিমানবন্দরে ওঠানামা করতো।

 

http://mediapara24.com

Facebooktwitterlinkedinrssyoutubeinstagramflickr